জন্ডিস রোগ হতে মুক্তির টোটকা

জন্ডিস রোগ হতে মুক্তির টোটকাঃ

হ্যালো ভিউয়ারস্ কোকা পন্ডিত.কম এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন। প্রতিবারের মতো এবারও আমরা আরও একটি নতুন বিষয় নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছে আমাদের আজকের নতুন বিষয় জন্ডিস রোগ হতে মুক্তির টোটকা।  আজ আমরা আপনাদের সামনে যে টোটকা উপস্থাপন করছি এই টোটকা 200 বছরের পুরাতন বই কোকা পন্ডিতের লজ্জাতুন্নেছা বই থেকে সংগৃহীত  ।  রোগে আক্রান্ত ব্যক্তি যদি এই টোটকা ব্যবহার করে থাকে তাহলে খুব অল্প সময়ের মধ্যে এসে এই রোগ হতে মুক্তি পাবে।  তাহলে চলুন আমরা জন্ডিস রোগ হতে মুক্তির টোটকা সম্পর্কে যাবতীয় বিষয় জেনে নিন-

প্রয়োজনীয় উপকরন সমুহ: জন্ডিস রোগ হতে মুক্তি পাবার জন্য যে টোটকা রয়েছে সেটি প্রেম করতে হলে আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় উপকরন সমুহ সংগ্রহ করতে হবে চলুন সে সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-  ছাগলের নাদি 50 গ্রাম,  হলুদ 15 গ্রাম,  সন্ধব লবণ 15 গ্রাম, পরিমাণমতো মধু।

নিয়ম কানুন ও প্রয়োগ বিধি: আপনি যদি এই টোটকা প্রিয় করতে চান তাহলে প্রথমত আপনাকে প্রয়োজনীয় উপকরন সমুহ সংগ্রহ করতে হবে।  তারপর আপনি সমস্ত উপকরণসমূহ একত্রে করে খুব ভালভাবে চূর্ণ করে মধুর সাথে মিশিয়ে সকাল দুপুর ও সন্ধ্যায় খেলে জন্ডিস রোগ থেকে মুক্তি হয় বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

আমাদের এই টোটকা সম্পর্কে যদি আপনাদের কোন ধরনের প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই আপনি আমাদেরকে ইমেইল করতে পারেন এছাড়া অবশ্যই আপনার মতামত জ্ঞাপন করবেন। তাছাড়াও আপনি যদি আমাদের কাছ থেকে কোন ধরনের পরামর্শ চেয়ে থাকেন বা আপনি যদি আমাদের সাথে সরাসরি কথা বলতে চান তাহলে আমাদের এই ওয়েবসাইটে আলাপন অপশন ব্যবহার করতে পারেন।

যেকোনো ধরনের যন্ত্র মন্ত্র তন্ত্র বশীকরণ ইত্যাদি প্রয়োগ ক্ষেত্রে যে সমস্ত প্রয়োজনীয় সামগ্রী প্রয়োজন হয়ে থাকে সেগুলি যদি আপনি সংগ্রহ করতে সক্ষম না হয়ে থাকেন তাহলে আমাদের এই ওয়েবসাইট হতে আপনি আপনার প্রয়োজন মত প্রয়োজনীয় উপকরন সমুহ সংগ্রহ করতে পারেন।

বি. দ্র: আপনি যে কোন ধরনের টোটকা প্রয়োগ ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার মনের মধ্যে বিশ্বাস রেখে কাজ করবেন তাহলে আপনি অবশ্যই সফলতা পাবেন। কোকা পন্ডিত.কম আপনাদের সামনে যে সকল যন্ত্র মন্ত্র বিভিন্ন কার্য সিদ্ধির জন্য আপনাদের সামনে তুলে ধরছে তা যদি তান্ত্রিক গুরু অথবা সাধকের নির্দেশ ব্যতীত সঠিক পদ্ধতিতে প্রয়োগ না করার ফলে কোন ব্যাঘাত ঘটে তার জন্য কোকা পন্ডিত.কম কখনই দায়ী থাকবে না।