যেকোন রুপসীকে বশ করার কোকা পন্ডিতের সহজ মন্ত্র

যেকোন রুপসীকে বশ করার কোকা পন্ডিতের সহজ মন্ত্রঃ

কোকা পন্ডিত.কম এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন। প্রতিবারের মতো এবারও আমরা আপনাদের সামনে আরও একটি নতুন বিষয় নিয়ে হাজির মেসি আমাদের আজকের নতুন বিষয় বশীকরণ মন্ত্র। আজ আমরা আপনাদের সামনে যে বশীকরণ মন্ত্র সম্পর্কে আলোচনা করব এই বশীকরণ মন্ত্র খুবই শক্তিশালী এবং সহজ একটি বশীকরণ মন্ত্র। এই বশীকরণ মন্ত্র প্রয়োগ করে আপনি আপনার মনের মানুষকে আপনার কাছে পেতে পারেন বা দুই বন্ধুর মধ্যে যদি মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়ে থাকে তাহলে আপনি সে ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করতে পারেন বা স্বামী স্ত্রীর মধ্যে যদি মনোমালিন্য হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যেতে পারে আপনি যদি আপনার উর্দ্ধতন কর্মকর্তা কে আপনার অনুগত করতে চান তাহলে আপনি এটি ব্যবহার করতে পারেন বা আপনি বিদেশে কর্মরত অবস্থায় আছেন সেখানে যদি আপনার উর্দ্ধতন কর্মকর্তা কে আপনি আপনার অনুগত করতে চান তাহলে আপনি ব্যবহার করতে পারেন। তবে আপনাদের জ্ঞাতার্থে একটি কথা জানিয়ে রাখি কখনোই কোন প্রকার অসৎ চিন্তা ভাবনা বা ও কু-মনোবাসনানিয়ে আপনি এই কাজটি করতে যাবেন না। তাহলে চলুন আমরা মন্ত্রটি প্রথমে দেখে নিই-

“ওহম্ নমো ভগবতী হী শ্বেত বোসে নমো নমঃ স্বাহা।”

প্রয়োজনীয় সামগ্রী: এই বশীকরণ মন্ত্র প্রয়োগ করার জন্য অবশ্যই আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় সামগ্রী সংগ্রহ করতে হবে সেগুলি হচ্ছে- তেল, ঘি, চিরমিটী গাচের শিকড়, শ্বেত চন্দন।

নিয়ম কানুন: প্রথমে মন্ত্রটি আগে ভালোভাবে মুখস্থ করে নিন। মন্ত্র উচ্চারণের সময় যদি আপনার মন্ত্র কোনো ধরনের ভুল হয়ে থাকে তাহলে আপনি মন্ত্র প্রয়োগ করে কোন প্রকার ফলাফল পাবেন না। এজন্য অবশ্যই মন্ত্র আগে খুব ভালোভাবে মুখস্থ করুন। মন্ত্র মুখস্থ করা হয়ে গেলে তারপর মন্ত্র কে আপনি সিদ্ধ করে নিন। মন্ত্র যদি আপনি সিদ্ধ না করে প্রয়োগ করে থাকেন তাহলে কখনোই কোন প্রকার ফলাফল পাবেন না। মন্ত্র সিদ্ধ করার জন্য আপনি যে কোনো মঙ্গলবার দিন বেছে নিন। উক্ত দিন আপনি নিজে পাক পবিত্রতা বজায় রেখে ভালো একটি সময় নির্বাচন করে উক্ত মন্ত্র 10 হাজার বার জপ করুন। তাহলে মন্ত্র টি সিদ্ধ হয়ে যাবে।

প্রয়োগ পদ্ধতি: মন্ত্র সিদ্ধ করা হয়ে গেলে তারপর আপনি যখন এই মন্ত্র প্রয়োগ করবেন তখন আপনি মঙ্গলবারের দিন বেছে নিবেন তারপর আপনাকে একটি যজ্ঞ এর আয়োজন করতে হবে। উক্ত যজ্ঞে তেল এবং মিলিয়ে যজ্ঞ করতে হবে। উক্ত যজ্ঞেরভস্ম এবং চিরমিটী গাছের শিকড় এনে শ্বেত চন্দন সহ খুব ভালোভাবে পিষে নিতে হবে। তারপর আপনি উক্ত উপাদান আপনার কপালে তিলক কাটবেন। তারপর আপনি আপনার কাঙ্খিত ব্যক্তির সামনে যাবেন। আপনার কাঙ্খিত ব্যক্তির সামনে যাওয়া মাত্রই সে যখন আপনাকে দেখবে তখন সে আপনার বশীভূত হবে। উক্ত প্রয়োগ টি করার পূর্বে অবশ্যই গুরুর অনুমতি গ্রহণ করুন। অনুমতির জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আরো যদি এই বিষয়ে কিছু জানার থাকে তাহলে তাহলে অবশ্যই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

বি.দ্র: অহেতুক কাউকে কোনো প্রকার কষ্ট দেয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে এই কাজটি আপনি করবেন না তাহলে আপনি নিজে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। ধন্যবাদ।।